মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান সৃজনশীল প্রশ্ন (SSC Biology CQ)


নবম অধ্যায়: দৃঢ়তা প্রদান ও চলন


(ক) জ্ঞানমূলক প্রশ্ন :


১। টেনডন কী?
২। অস্থি কী?
৩। অস্থিসন্ধি কী?
৪। লিগামেন্ট কী?
৫। কঙ্কালতন্ত্র কাকে বলে?
৬। পেরিকন্ড্রিয়াম কী?
৭। সারকোলেমা কী?
৮। কঙ্কাল কী দ্বারা গঠিত?
৯। ল্যাকিউনি কী?
১০। চলন কাকে বলে?
১১। ক্যাপসুল কী?
১২। অস্টিওব্লাস্ট কী?
১৩। অস্টিওপোরেসিস কী?
১৪। মানব কঙ্কালে অস্থি সংখ্যা কত?
১৫। সাইনোভিয়াল অস্থি সন্ধি কী?
১৬। দৃঢ়তা কী?
১৭। অস্থিসন্ধি কাকে বলে?
১৮। টেনডন কী?
১৯। পেরিঅস্টিয়াম কী?


(খ) অনুধাবনমূলক প্রশ্ন :


১। অস্টিওপোরেসিস বলতে কী বুঝায়?
২। গেঁটেবাত বলতে কী বুঝায়?
৩। পেশিতন্ত্রের কাজ লিখ।
৪। টেনডন এর কাজ কী?
৫। অস্থিসন্ধির কাজ কী?
৬। মেরুদন্ডের অস্থিসন্ধি কোন ধরনের অস্থিসন্ধি ব্যাখ্যা কর।
৭। অস্থি ও তরুণাস্থির ৪টি পার্থক্য লিখ।
৮। লিগামেন্ট বলতে কী বুঝায়?
৯। অস্থি ও তরুণাস্থির ৪টি পার্থক্য লিখ।
১০। টেনডন বলতে কী বোঝায়?
১১। সাইনোভিয়াল অস্থিসন্ধি কী? ব্যাখ্যা করো।
১২। কংকালতন্ত্রের কাজ লিখ।
১৩। বহিঃকঙ্কাল বলতে কী বোঝায়?
১৪। বাইসেপস ও ট্রাইসেপস পেশির মধ্যে পার্থক্য লেখো।
১৫। মাংসপেশি অস্থির সাথে আটকানো না থাকলে কী হতো?
১৬। কঙ্কালের সাহায্যে কী কী কাজ সম্পন্ন হয়?
১৭। তরুণাস্থিকে চকচকে সাদা দেখায় কেন?
১৮। সাইনোভিয়াল অস্থি সন্ধি বলতে কী বুঝ?
১৯। টেনডন ও লিগামেন্টের পার্থক্য কী?
২০। কঙ্কালের চারটি কাজ উল্লেখ করো।
২১। গেঁটে বাত হলে শরীরে কী ধরণের সমসা দেখা দেয়?


(গ) ও (ঘ) প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্ন :


১। নিচের উদ্দীপকটি পর্যবেক্ষণ কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:


(গ) B চিহিত অংশটি কীভাবে বাঁকানো বা সোজা করা যায় তা বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) মানুষের চলনে A ও C চিহ্নিত অংশ দুটির ভূমিকা বিশ্লেষণ কর। ৪


২। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :

১১ বছরের মিনা বেশ স্বাস্থ্যবান এবং চঞ্চল প্রকৃতির। সে তার সারাদিনে অনেকটা সময় দৌড়ঝাপ ও খেলাধুলা করে কাটায়। একদিন সে দৌড়াতে গিয়ে পড়ে গেলে পায়ের লিগামেন্টে আঘাত পায়।
(গ) মিনার আঘাতপ্রাপ্ত অংশটি দরজার কবজার সাথে তুলনা করা হয় কেন? ব্যাখ্যা কর।
(ঘ) মিনার কার্যক্রমটি সম্পন্ন করতে কীসের সমন্বয় অপরিহার্য বিশ্লেষণ কর।


৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মানবদেহের অভ্যন্তরীণ কাঠামো এক ধরনের টিস্যু দ্বারা গঠিত। দুই বা ততোধিক অস্থির সংযোগস্থল স্থিতিস্থাপক রজ্জুর মতো বন্ধনী দিয়ে দৃঢ়ভাবে আটকানো থাকে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লেখিত অস্থির সংযোগস্থলের চিহ্নিত চিত্র অঙ্কন করো। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লেখিত অস্থির সংযোগস্থলের প্রকারভেদগুলি পরস্পর পৃথক- ব্যাখ্যা করো। ৪


৪। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
এক ব্যক্তি এক্সিডেন্টে হাঁটুতে ব্যথা পেয়ে একজন অর্থ্রোপেডিক্স বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দেখালেন। চিকিৎসক বললেন, যথাযথ চিকিৎসা না করালে দীর্ঘমেয়াদী সমস্যা হতে পারে।
(গ) উদ্দীপকের অস্থি সন্ধিটির চিহ্নিত চিত্র অংকন করো। ৩
(ঘ) মানুষের চলন ও অঙ্গ চালনায় এ ধরনের সন্ধির গুরুত্ব বিশ্লেষণ করো। ৪


৫। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মানবদেহের কঙ্কাল পর্যবেক্ষণের সময় রমিজ স্যার হাত ও পায়ের অস্থিসন্ধি দেখিয়ে বলেন এগুলো সাইনোভিয়াল অস্থিসন্ধি। এছাড়াও তিনি বাইসেপস ও ট্রাইসেপস পেশির কার্যক্রম ব্যাখ্যা করেন।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত অস্থিসন্ধিটির পরিষ্কার চিহ্নিত চিত্র আঁক। ৩
(ঘ) মানুষের চলনে উদ্দীপকে উল্লিখিত পেশির কার্যক্রম বিশ্লেষণ করো। ৪


৬। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
ইমরান ক্রিকেট খেলতে গিয়ে ডান পায়ের হাঁটুতে প্রচণ্ড আঘাত পেল। ডাক্তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বললেন, তার হাঁটুর সংযোগস্থলের বন্ধনী ছিড়ে গেছে।
(গ) ইমরানের আঘাত প্রাপ্ত স্থানের গঠন ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) ইমরানের উক্ত অঙ্গের কার্যক্রমটি সম্পাদনের জন্য বন্ধনীটির সাথে দেহের অন্যান্য অংশের কাজের সমন্বয় বিশ্লেষণ করো। ৪


৭। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মনি খাসির মাংস দিয়ে ভাত খেতে বসে একটি হাড়ের প্রান্তের চকচকে নরম অংশ খেয়ে খুব স্বাদ পেল। কিন্তু পেছনের শক্ত অংশটুকু অনেক চেষ্টা করেও সে খেতে পারল না।
(গ) মনির খাওয়া অংশের সাথে খেতে না পারা অংশের তুলনামূলক আলোচনা করো। ৩
(ঘ) মানুষের চলনে উদ্দীপকের শেষোক্ত লাইনে উল্লিখিত অংশ ও পেশির ভূমিকা বিশ্লেষণ করো। ৪


৮। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মানুষের দেহাভ্যন্তরীণ কাঠামো গঠনকারী তন্ত্র পর্যবেক্ষণের সময় শিক্ষক হাতের কনুইয়ের অস্থিসন্ধি দেখিয়ে বললেন, এটি বিশেষ ধরণের অস্থিসন্ধি।
(গ) শিক্ষকের নির্দেশিত অস্থি সন্ধিটির গঠন ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) উক্ত তন্ত্রের কার্যক্রম, তোমার দেহকে সচল রাখে-যুক্তিসহ বিশ্লেষণ করো। ৪


৯। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
উৎস ফুটবল খেলতে গিয়ে এমন একটি অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হলো যা হাড়গুলোকে সংযুক্ত রাখে।
(গ) উল্লেখিত অংশটির গঠন বর্ণনা করো। ৩
(ঘ) আমাদের চলনে শুধু কঙ্কাল নয়, পেশিও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বর্ণনা করো। ৪


১০। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মানুষের দেহাভ্যন্তরীণ কাঠামো গঠনকারী তন্ত্র পর্যবেক্ষণের সময় শিক্ষক হাতের কনুইয়ের অস্থিসন্ধি দেখিয়ে বললেন এটি বিশেষ ধরণের অস্থিসন্ধি।
(গ) শিক্ষকের নির্দেশিত অস্থি সন্ধিটির গঠন ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) উক্ত তন্ত্রের কার্যক্রম তোমার দেহকে কীভাবে সচল রাখে? তা ব্যাখ্যা করো। ৪


১১। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
শিশিরের মায়ের বয়স ৫০। তিনি বেশ কিছুদিন যাবত অস্থিতে ব্যথা এবং পেশিতে শক্তির অভাব অনুভব করছেন। তিনি ডাক্তারের নিকট গেলে ডাক্তার তাঁকে তাঁর রোগের প্রতিকার ও প্রতিরোধের কিছু পরামর্শ দিলেন। অ
(গ) শিশিরের মাকে দেয়া ডাক্তারের পরামর্শগুলো ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) শিশিরের মায়ের দেহের সমস্যাগ্রস্থ অংশগুলো মানুষকে চলতে সাহায্য করেÑ বিশ্লেষণ করো। ৪


১২। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
আমাদের মাংসপেশি অস্থির সাথে এক ধরণের যোজক টিস্যু দ্বারা যুক্ত থাকে। আবার অস্থি, অস্থির সাথে যুক্ত থাকে আরেক ধরনের যোজক টিস্যু দ্বারা। বয়স্ক পুরুষ ও মহিলাদের অস্থির একটি রোগ বেশি হয় বিশেষ করে মহিলাদের মেনোপস হওয়ার পর।
(গ) উদ্দীপকের যোজক টিস্যু দুইটির পার্থক্য লিখ। ৩
(ঘ) আমাদের সচেতনতাই পারে উদ্দীপকের রোগ থেকে আমাদের রক্ষা করতে। বিশ্লেষণ করো। ৪


১৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
ক্যালসিয়াম আমাদের দেহের একটি বিশেষ ধরনের তন্ত্র গঠন করে। এর অভাবে উক্ত তন্ত্রে বিশেষ ধরনের রোগ হয়ে থাকে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত তন্ত্রটির দৃঢ় কলার গঠন ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) ক্যালসিয়ামের অভাবে উদ্দীপকে উল্লিখিত তন্ত্রে একটি বিশেষ ধরণের রোগ হয়। বিশ্লেষণ করো। ৪


১৪। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মনু মিয়া নাভীর চারদিকে ব্যথা অনুভব করার কিছুক্ষণের মধ্যেই তা নিচে ডানদিকে সরে যায়। অন্যদিকে মনু মিয়ার নানী (বয়স-৫৫ বছর) পিঠের পিছনে এবং অস্থিতে ব্যথা অনুভব করেন, আর তাঁর পেশীর শক্তি কমছে। ডাঃ হাসানের কাছে গেলে তিনি মনু মিয়ার ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেন। আর নানীকে তাঁর রোগটি হতে রক্ষা পেতে পরামর্শ দেন।
(গ) মনু মিয়ার রোগটি নির্ণয় করো। ৩
(ঘ) ডাঃ হাসানের পরামর্শ অনুযায়ী মনু মিয়ার নানী-এর করণীয় বিষয়গুলো আলোচনা করো। ৪


১৫। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
নয়নের আব্বা গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে চাকরি করেন। প্রতিদিন সকাল ৭টায় যান আর রাত ৯টায় বাসায় ফেরেন। একদিন সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে নয়ণ দেখতে পেল তার আব্বা বিছানায় শুয়ে ব্যথায় কাতরাচ্ছেন। তার আব্বার পায়ের গিটগুলো ফুলে গেছে। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর ডাক্তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাপত্র দিলেন।
(গ) নয়নের আব্বার এমনটি হওয়ার কারণ কী? ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) কী ব্যবস্থা গ্রহণ করলে উক্ত সমস্যার সমাধান হতে পারে? আলোচনা করো। ৪


১৬। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
নদী তার মেডিকেল পড়ুয়া বোনের ঘরে গিয়ে একটি কৃত্রিম মানবকঙ্কাল দেখতে গেল। সে হাত দিয়ে কঙ্কালের কিছু অস্থি সংযোগ নাড়াতে পারলেও বেশ কিছু নাড়াতে পারল না। তার বোন তাকে বলল যে, তার দেহ এরকম একটি কাঠামো দিয়ে গঠিত যেখানে পেশীক্রিয়া ও স্নায়ুর মাধ্যমে দেহটি সঞ্চালিত হয়।
(গ) নদীর দেখা অস্থিসংযোগগুলোর বিভিন্নতার কারণ ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) নদীর দেহ সঞ্চালনে বিভিন্ন ধরনের টিস্যুর সমন্বয় উদ্দীপকের আলোকে বিশ্লেষণ করো। ৪


১৭। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
সাকিব এবং তার বাবা দুজনেই একই ডাক্তারের শরণাপন্ন হলেন। ক্রিকেট খেলতে গিয়ে সাকিবের এমন একটি অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হলো, যা হাড়গুলোকে পরস্পরের সাথে সংযুক্ত রাখে। অপরদিকে তার বাবা দীর্ঘদিন যাবৎ স্টেরয়েড যুক্ত ঔষধ সেবন করেও পিঠের পেছনে দিকে ও অস্থিতে ব্যথা অনুভব করছেন।
(গ) সাকিবের পায়ের ক্ষতিগ্রস্থ অংশটির গঠন ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সাকিবের বাবার রোগটি উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাওয়ার কারণ বিশ্লেষণ করো। ৪


১৮। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
তুর্য ফুটবল খেলতে গিয়ে বাম পায়ের হাঁটুতে প্রচণ্ড আঘাত পেল। সে ডাক্তারের শরণাপন্ন হলে, ডাক্তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বললেন, তার হাঁটুর সংযোগস্থলের বন্ধনী ছিড়ে গিয়েছে।
(গ) তুর্যের আঘাত প্রাপ্ত স্থানটির গঠন ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) তুর্যের কার্যক্রমটি সম্পাদনের জন্য কীসের সমন্বয় অপরিহার্য- বিশ্লেষণ করো। ৪


১৯। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
৬০ বছরের রহিমা বেগমের এক ধরনের বাত রোগ হয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ জ্বরে ভুগেছেন। এ সময়ে তার যথাযথ চিকিৎসা হয়নি।
(গ) রহিমা বেগমের রোগের নাম উল্লেখপূর্বক লক্ষণসমূহ বর্ণনা করো। ৩
(ঘ) রহিমা বেগমের উক্ত রোগ নিরসনে কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে- বিশ্লেষণ করো। ৪


২০। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
নেহালের হাত পায়ের গিটে ব্যথা হয় এবং গিঁটগুলো ফুলে গিয়েছে। সে ডাক্তারের কাছে গেলে ডাক্তার দেয়ালে টাঙ্গানো নিচের চিত্রটি দেখালেন।
(গ) তোমার চলাচলের জন্য উদ্দীপকের চিত্রের ভূমিকা ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) নেহালের রোগ থেকে রক্ষা পেতে হলে কী কী ব্যবস্থা নেয়া উচিত? তোমার মতামত দাও। ৪


২১। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
মনন বিদ্যালয়ের ইনডোর পিকনিকে খাসির মাংস দিয়ে ভাত খেতে বসে অস্থি প্রান্তের নরম অংশ খেয়ে খুব স্বাদ পেল। কিন্তু মাংসপেশির প্রান্তভাগ রজ্জুর মতো শক্ত হওয়ার অস্থিগাত্র থেকে মাংস ছাড়াতে কষ্ট হলো।
(গ) মানবদেহে উল্লিখিত নরম অংশের গঠন বৈশিষ্ট্য ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে মাংসপেশির প্রান্ত ভাগের সাথে লিগামেন্টের তুলনামূলক আলোচনা করো। ৪


২২। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
মিসেস আরজুমান্দ বানু জটিল কিডনি রোগে দীর্ঘদিন ধরে ভুগছেন। চিকিৎসক ডায়ালাইসিস করতে পরামর্শ দিয়েছেন। তার ছোট মেয়েটি আর্থ্রাইটিস রোগে ভুগছে।
(গ) উদ্দীপকে আরজুমান্দ বানুর চিকিৎসা পদ্ধতি চিত্রসহ বর্ণনা করো। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে ছোট মেয়েটি যে রোগে আক্রান্ত হয়েছে তার লক্ষণ উল্লেখপূর্বক তুমি কীভাবে তার প্রতিকার প্রতিরোধে তাদেরকে মানসিক সহায়তা দান করবে। ৪


২৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
আনিস স্যার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক করানোর সময় মানব কংকাল দেখালেন এবং বিভিন্ন অস্থিসন্ধি সম্পর্কে আলোচনা করেন। মানুষের চলনে এই অস্থির ভূমিকা এবং কিছু ঐচ্ছিক পেশির ভূমিকাও আলোচনা করেন।
(গ) দুটি অস্থির বর্হিভাগ মিলিত হয়ে যে অস্থিসন্ধি গঠন করে তার বর্ণনা করো। ৩
(ঘ) মানুষের চলনে উপরোক্ত অস্থি ও ঐচ্ছিক পেশিসমূহের ভূমিকা বিশ্লেষণ করো। ৪


২৪। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
করিম সাহেব একটি বহুতল ভবনে দারোয়ানের চাকুরী করেন। করিম সাহেব একদিন দেখলেন, তার পায়ের গিটগুলো ফুলে আছে। তিনি অনেক ব্যথা নিয়ে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে গেলেন।
(গ) করিম সাহেবের গিটে ব্যাথার কারণসহ লক্ষণগুলো ব্যাখ্যা করো। ৩
(ঘ) উক্ত সমস্যার সমাধান কীভাবে সম্ভব? আলোচনা করো। ৪


২৫। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
জীববিজ্ঞান শিক্ষকের নেতৃত্বে ১০ম শ্রেণির ছাত্ররা ল্যাবে প্রবেশ করল। সেখানে তারা মানবদেহের একটা কংকাল দেখতে পেল। শিক্ষক ছাত্রদেরকে মানবদেহের হাত, পা সহ সমস্ত অঙ্গের কোথায় কয়টি হাড় থাকে, তাদের নাম কী ইত্যাদি হাতে কলমে বুঝিয়ে দিলেন। আরও বললেন একটা রোগে বয়স্কদের অস্থিসন্ধি নাড়াতে কষ্ট হয়, গিট ফুলে যায়।
(গ) মানব কংকালে উদ্দীপকে উল্লিখিত অংগ দুটির হাড় সমূহের নাম পর্যায়ক্রমে লিখ। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে শিক্ষক যে রোগের কথা বলেছেন তা হতে কীভাবে প্রতিকার লাভ করা যায় তোমার মতামত দাও। ৪


২৬। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
মি. সুমন অলস ব্যক্তি। কোনো পরিশ্রম করতে চায় না। হঠাৎ দরজার সামান্য আঘাতে পায়ের হাড় ভেঙে গেছে।
(গ) সুমনের আক্রান্ত রোগটির নাম ও প্রতিকার লিখ। ৩
(ঘ) নিয়মিত ব্যায়াম ও সুষম খাবার রোগটি প্রতিরোধের সহজ উপায় বিশ্লেষণ করো। ৪


২৭। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:
নয়ন মুরগির মাংস দিয়ে ভাত খেতে বসে হাড়ের প্রান্তের নরম অংশ খেয়ে খুব স্বাদ পেল। কিন্তু পিছনের শক্ত অংশটুকু চেষ্টা করেও খেতে পারল না।
(গ) মানবদেহে উল্লেখিত নরম অংশের গঠন উপাদান বর্ণনা করো। ৩
(ঘ) নয়নের হাড়ের খাওয়া অংশের সাথে না পারা অংশের তুলনামূলক আলোচনা করো। ৪