উচ্চ মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্র সৃজনশীল প্রশ্ন (HSC Biology 2nd Paper CQ)


দশম অধ্যায়: মানব দেহের প্রতিরক্ষা


(ক) জ্ঞানমূলক প্রশ্ন :


১। ইন্টারফেরন কি? [সকল বোর্ড-২০১৮]
২। ইমিউনতন্ত্র কী? [ঢাকা বোর্ড-২০১৭]
৩। ইম্যুনিটি কী? [দিনাজপুর বোর্ড-২০১৬]
৪। অ্যান্টিজেন কি? [রাজশাহী বোর্ড-২০১৭, ২০১৬, চট্টগ্রাম বোর্ড-২০১৭, বরিশাল বোর্ড-২০১৭]
৫। অ্যান্টিবডি কী? [চট্টগ্রাম বোর্ড-২০১৬]
৬। ভ্যাক্সিন কী? [যশোর বোর্ড-২০১৬]
৭। অনাক্রম্যতা কী? [সিলেট বোর্ড-২০১৬]
৮। সহজাত অনাক্রম্যতা কাকে বলে?
৯। রসনির্ভর অনাক্রম্যতা কাকে বলে?
১০। প্রতিরক্ষা কি?
১১। অর্জিত প্রতিরক্ষা কাকে ?
১২। সহজাত প্রতিরক্ষা কি?
১৩। ফ্যাগোসাইটোসিস কাকে বলে?
১৪। ফ্যাগোসোম কাকে বলে?
১৫। প্রাকৃতিক ঘাতক কোষ কি?
১৬। কিলার কোষ কি?
১৭। ইমিউনোগ্লোবিউলিন কি?
১৮। ইমুনাইজেশন কাকে বলে?
১৯। স্টেমকোষ কাকে বলে?
২০। T-লিম্ফোসাইট কি?
২১। ম্যাক্রোফেজ কি?
২২। স্মৃতিকোষ কাকে বলে?
২৩। অপসোনাইজেশন কাকে বলে?
২৪। পাইরোজেন কী?
২৫। ম্যাক্রোফেজ কাকে বলে?


(খ) অনুধাবনমূলক প্রশ্ন :


১। অর্জিত প্রতিরক্ষা বলতে কি বুঝ? [ঢাকা বোর্ড-২০১৭]
২। ইমিউনিটি বলতে কি বুঝ? [রাজশাহী বোর্ড-২০১৭. যশোর বোর্ড-২০১৭]
৩। নিউট্রোফিলকে ফ্যাগোসাইট বলা হয় কেন? [কুমিল্লা বোর্ড-২০১৭]
৪। সহজাত প্রতিরক্ষা বলতে কি বুঝায়? [চট্টগ্রাম বোর্ড-২০১৭]
৫। রোগ প্রতিরোধ বলতে কী বোঝায়? [যশোর বোর্ড-২০১৬]
৬। সহজাত প্রতিরক্ষা অর্জিত প্রতিরক্ষা হতে আলাদা কেন? [কুমিল্লা বোর্ড-২০১৫]
৭। ত্বক কীভাবে প্রতিরক্ষায় সাহায্য করে ব্যাখা কর।
৮। আমাদের দেহের প্রথম প্রতিরক্ষা স্তরগুলো কি কি?
৯। ম্যাক্রোফেজ ও নিউট্রোফিলের মধ্যে পার্থক্য কি?
১০। সহজাত ও অর্জিত প্রতিরক্ষার মধ্যে পার্থক্য লিখ।
১১। বিভিন্ন প্রকার এন্টিবডির নাম লিখ।
১২। টিকা তৈরিতে কি কি বিষয় লক্ষ্য রাখা হয়?
১৩। দ্বিতীয় প্রতিরক্ষা স্তর বলতে কী বোঝায়?
১৪। নিউট্রোফিল কিভাবে জীবাণু ধ্বংস করে?
১৫। ফ্যাগোলাইসোজোম কিভাবে গঠিত হয়?
১৬। ইমিউনিটি বলতে কী বোঝো?
১৭। প্রথম প্রতিরক্ষা স্তরের ক্ষেত্রে ত্বকের ভূমিকা লেখো।
১৮। অর্জিত প্রতিরক্ষা স্তর বলতে কী বোঝো?
১৯। প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বলতে কী বুঝ?
২০। সহজাত ও অর্জিত প্রতিরক্ষা বলতে কী বোঝো?
২১। প্রদাহ কী ও কেন সৃষ্টি হয়?
২২। অনাক্রম্য তন্ত্রে কোন কোন কোষ অংশগ্রহণ করে?
২৩। মানুষের জ্বর হয় কেন?
২৪। ফ্যাগোসাইটোসিস বলতে কী বোঝ?
২৫। দেহের প্রতিরক্ষায় ত্বকের ভূমিকা লিখ।
২৬। খাদ্যদ্রব্যের ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসে পরিপাকনালির এসিড ও এনজাইমের ভূমিকা লেখো।
২৭। ফ্যাগোসাইটোসিস প্রক্রিয়ায় ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস হওয়া বর্ণনা করো।
২৮। ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসে দ্বিতীয় প্রতিরক্ষা স্তরের ভূমিকা লেখো।
২৯। প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় অ্যান্টিবডির ভূমিকা লেখো।
৩০। ইমিউন সিস্টেম শক্তিশালী করতে টিকার ভূমিকা লেখো।
৩১। দেহের প্রতিরক্ষায় স্মৃতিকোষের ভূমিকা লেখো।
৩২। সহজাত আচরণ ও শিখন আচরণের মধ্যে পার্থক্য লিখ।
৩৩। অপসোনাইজেশন বলতে কী বোঝায়?


(গ) প্রয়োগ ও (ঘ) উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্ন :



১। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[ঢাকা বোর্ড-২০১৭]


(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত 'A' চিত্রটি যে প্রতিরক্ষা স্তর নির্দেশ করে সেই স্তরের বর্ণনা দাও। ৩
(ঘ) 'B' চিত্রটি মানবদেহে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় কিভাবে ভূমিকা পালন করে? বিশ্লেষণ কর। ৪

২। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[রাজশাহী বোর্ড-২০১৭]

শিক্ষক ক্লাসে বিভিন্ন জীবাণুর আক্রমণ হতে দেহ রক্ষায় ধারণা দিতে গিয়ে বললেন, দেহের বাইরের বিশেষ কিছু অঙ্গ এই ব্যবস্থায় প্রাথমিক ভূমিকা রাখে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত ধারণার শ্রেণিবিন্যাস কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লিখিত বিশেষ অঙ্গের ভূমিকার সম্পর্কে তোমার মতামত দাও। ৪

৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[যশোর বোর্ড-২০১৭]

শিক্ষক ক্লাসে বিভিন্ন জীবাণুর আক্রান্ত হতে দেহ রক্ষার ধারণা দিতে গিয়ে বললেন, দেহের বাইরের বিশেষ কিছু অঙ্গ এই ব্যবস্থার প্রাথমিক ভূমিকা রাখে।
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লিখিত ধারণার শ্রেণিবিন্যাস কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লিখিত বিশেষ অঙ্গের ভূমিকা সম্পর্কে তোমার মতামত দাও। ৪

৪। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[কুমিল্লা বোর্ড-২০১৭]

শিক্ষক মানবদেহের প্রতিরক্ষা নিয়ে আলোচনায় বললেন-“আমাদের দেহে নির্দিষ্ট প্রতিরক্ষা স্তরে ই-লিম্ফোসাইট থেকে এক ধরনের প্রোটিন অণু উৎপন্ন হয় যা অণু প্রবেশকারী বস্তু বা অণুজীবকে ধ্বংস করে। দেহ প্রতিরক্ষায় উক্ত প্রোটিন অণু বিশেষ ভূমিকা পালন করে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লেখিত প্রোটিন অণুর চিত্রসহ গঠন বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) দেহ প্রতিরক্ষায় উদ্দীপকে উল্লিখিত অণু কিভাবে অণুজীব ধ্বংস করে–তা বিশ্লেষণ কর। ৪

৫। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[চট্টগ্রাম বোর্ড-২০১৭]

জীবমণ্ডল থেকে বহু জীবাণু আমাদের দেহে প্রবেশ করে। কিন্তু অধিকাংশ জীবাণু ত্বক বা পরিপাক নালির মাধ্যমে নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়। এছাড়া দেহে বিশেষ কিছু কোষ দ্বারা প্রোটিন জাতীয় পদার্থ উৎপাদনের মাধ্যমে জীবাণু নিষ্ক্রিয় হয়।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত নিষ্ক্রিয় পদ্ধতিসমূহের মধ্যে যেকোনো একটি পদ্ধতি বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লিখিত ‘প্রোটিন জাতীয় পদার্থ' জীবাণু ধ্বংসে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে কিভাবে? ব্যাখ্যা কর। ৪

৬। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও : [বরিশাল বোর্ড-২০১৭]


(গ) উদ্দীপকের গঠনটি কিভাবে অণুজীবের বিরুদ্ধে ক্রিয়াশীল হয়–ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) স্মৃতিকোষ উদ্দীপকের গঠনটিকে আরও ক্রিয়াশীল হতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।–সপক্ষে যুক্তি দাও। ৪

৭। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[সিলেট বোর্ড-২০১৭]

জন্মের পর বিভিন্ন রোগের টিকার জন্য যেমন আমাদের দেহে এক ধরনের অনাক্রম্যতার সৃষ্টি হয়; তেমনি জন্মের সময়ও আমাদের দেহে প্রাকৃতিকভাবে এক ধরনের অনাক্রম্যতা সৃষ্টি হয়।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত ঘটনা সৃষ্টিকারী পদার্থটির গঠন বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লিখিত অনাক্রম্যতার তুলনামূলক বিশ্লেষণ কর। ৪

৮। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[রাজশাহী বোর্ড-২০১৬]

ডাক্তার সাহেব রোগীদের বললেন যে, দেহে প্রবেশ করা জীবাণুগুলোর বিরুদ্ধে দুইভাবে প্রতিরোধ গড়ে ওঠে। যার একটি জন্মগত এবং অপরটি অর্জিত। এই দুই ধরনের প্রতিরোধ ব্যবস্থাই হলো ইমিউনতন্ত্র।
(গ) উদ্দীপকের প্রতিরোধ ব্যবস্থা দুটির ভিন্নতা তুলে ধর। ৩
(ঘ) মানুষের বেঁচে থাকার জন্য উদ্দীপকের তন্ত্রটির ভূমিকা বিশ্লেষণ কর। ৪

৯। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[চট্টগ্রাম বোর্ড-২০১৬]

মানব ভ্রূণীয় পরিস্ফুটনের ভিডিও ক্লিপে ব্লাস্টুলা ও গ্যাস্টুলা দশার ছবি দেখিয়ে শিক্ষক বললেন, প্রথম গঠনটি জরায়ুতে প্রতিস্থাপন হওয়ার পর পরবর্তী গঠনটিতে উপনীত হয় এবং এর স্তরগুলোই মানবদেহের বিভিন্ন অংশ তৈরি করে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত প্রথম গঠনটি কীভাবে জরায়ুতে প্রতিস্থাপিত হয়? ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকের দ্বিতীয় গঠনটির বিভিন্ন স্তরে পরিবর্তন ছাড়া পূর্ণাঙ্গ দেহ গঠন অসম্ভব- বিশ্লেষণ কর। ৪

১০। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-[যশোর বোর্ড-২০১৬]

ত্বক মানবদেহে প্রথম প্রতিরক্ষা স্তর হিসেবে কাজ করে। ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসের ক্ষেত্রে এনজাইম, অ্যাসিড, ম্যাক্রোফেজ এবং নিউট্রিফিল বিশেষ ভূমিকা পালন করে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত দেহের প্রতিরক্ষায় প্রথম স্তরের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লিখিত শেষের অংশটির তাৎপর্য বিশ্লেষণ কর। ৪

১১। নিচের চিত্রগুলো লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ- [সিলেট বোর্ড-২০১৬]


(গ) উদ্দীপকের আলোকে দেহের প্রতিরক্ষায় ‘A' স্তরের ৩নং অঙ্গের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) মানবদেহের সুস্থতার জন্য উদ্দীপকের ‘B' স্তরটি অপরিহার্য—বিশ্লেষণ কর। ৪

১২। নিচের চিত্রটি লক্ষ কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও : [চট্টগ্রাম বোর্ড-২০১৫]


(গ) উদ্দীপকের গঠনটি বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) ভ্যাক্সিন প্রয়োগের মাধ্যমে উদ্দীপকের গঠনটি তৈরি করে বিভিন্ন রোগ থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব - উক্তিটির যথার্থতা নিরূপণ কর। ৪

১৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :

জামাল কিছুদিন পূর্বে হেপাটাইটিস বি এর টিকা গ্রহন করেছে। কিন্তু হঠাৎ যে চিকেন পক্সে আক্রান্ত। বাবা বলল, দুশ্চিন্তার কিছু নেই এ রোগ কয়েক দিনের মধ্যে সেরে যাবে এবং তোমার আর কখনই এ রোগ হবে না।
(গ) জামাল কিছুদিন পূর্বে যে উপাদানটি গ্রহণ করেছে তার কারণ ব্যাখ্যা কর।
(ঘ) জামাল এর বাবা কেন বলল তার আর এ রোগ কোন দিনই হবে না।- বিশ্লেষণ কর।

১৪। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।


(গ) উদ্দীপকের আলোকে মানবদেহে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার শ্রেণিবিন্যাস কর।
(ঘ) উদ্দীপকের অঙ্গগুলো মানবদেহের প্রতিরক্ষায় কীভাবে ভূমিকা রাখে আলোচনা কর।

১৫। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মানবদেহে স্বাভাবিক প্রতিরক্ষার মধ্যে আছে ত্বক, শ্বসনতন্ত্রের আবরণী পর্দা। পাকস্থলীর এসিডেও পরিপাকতন্ত্রের উৎসেচক, ফ্যাগোসাইট নামক শ্বেত রক্তকণিকা ও রক্ত এবং কোষরসে বিদ্যমান এন্টিবডিসমূহ। চিকিৎসাবিজ্ঞানে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে কৃত্রিম অন্যক্রম্যতা বলা হয়।
(গ) খাদ্যদ্রব্যের ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসে পরিপাকনালীর এসিড ও এনজাইমের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) দেহে এন্টিজেনের উপর এন্টিবডি ক্রিয়াশীল তা বিশ্লেষণ কর। ৪

১৬। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :

A = দেহে প্রবিষ্ট ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া
B = নিউক্লিয়াসযুক্ত রক্তকণিকা
C = A-এর প্রতিক্রিয়ায় সৃষ্ট গ্লাইকোপ্রোটিন।

(গ) চিত্রসহ C -এর গঠন বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) A ধ্বংসে B ও C কিভাবে কাজ করে তা আলোচনা কর। ৪

১৭। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
কোন দেশ শত্রু দ্বারা আক্রান্ত হলে সে দেশের সেনাবাহিনী যেমন শত্রু পক্ষকে ধ্বংস করার জন্য যুদ্ধ করে আমাদের দেহের তেমন একটি ব্যবস্থা আছে। তাছাড়াও দেহের প্রতিরক্ষায় শত্রু পক্ষকে স্মরণে রেখে শত্রুর পুনরায় আক্রমণ থেকে দেহকে রক্ষার একটি অনন্য ব্যবস্থা আছে।
(গ) উদ্দীপকের আলোকে আমাদের দেহের জীবাণু ধ্বংসের ব্যবস্থা আলোচনা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকের শেষ লাইনটির স্বপক্ষে তোমার মতামত দাও। ৪

১৮। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
ত্বক মানবদেহের প্রাথমিক প্রতিরক্ষা স্তর। কিন্তু জীবাণু শরীরে প্রবেশ করলে ম্যাক্রোফেজ, নিউট্রোফিল জীবাণু ভক্ষণ করে একটি বিশেষ প্রক্রিয়ায়। আবার শরীরে অ্যান্টিজেন প্রবেশ করলে তা প্রতিরোধ করার জন্য প্রোটিন জাতীয় এক ধরনের বস্তু উৎপন্ন হয়।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত প্রক্রিয়াটি বর্ণনা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে প্রোটিন জাতীয় বস্তুটির গঠন ব্যাখ্যা কর। ৪

১৯। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।


(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত চিত্রের গঠন ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) ভ্যাক্সিন প্রয়োগের ক্ষেত্রে উদ্দীপকের গঠনটির ভূমিকা বিশ্লেষণ কর। ৪

২০। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
মানবদেহে স্বাভাবিক প্রতিরক্ষার মধ্যে রয়েছে ত্বক, শ্বসনতন্ত্রের আবরণী পর্দা। পাকস্থলীর এসিড ও পরিপাক তন্ত্রের উৎসেচক ফ্যাগোসাইট নামক শ্বেত রক্তকণিকা ও রক্ত এবং কোষরসে বিদ্যমান এন্টিবডিসমূহ। চিকিৎসা বিজ্ঞানে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে কৃত্রিম অনাক্রম্যতা বলা হয়।
(গ) খাদ্যদ্রব্যের ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসে পরিপাকনালির এসিড ও এনজাইমের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) দেহে Antigen -এর উপর Antibody -এর ক্রিয়াশীলতা বিশ্লেষণ কর। ৪

২১। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
বাড়ির চারদিকে ওয়ালের ন্যায় আমাদের দেহকে ঘিরে রয়েছে এক বিশেষ ধরনের প্রতিরক্ষা দেয়াল। জীবাণু দেহে প্রবেশ করলে রক্ত তৈরি করে এক বিশেষ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। তা সত্ত্বেও রোগ মুক্ত দেশ গঠনে ভেক্সিনের বিকল্প নেই।
(গ) দেহকে ঘিরে অবস্থিত উদ্দীপকের প্রতিরক্ষা দেয়ালের ভূমিকা উল্লেখ কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকের উল্লেখিত শেষোক্ত লাইনটির যথার্থতা নিরূপণ কর। ৪

২২। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :
দেহে উৎপন্ন এক ধরনের গ্লাইকোপ্রোটিন B যা রোগ ব্যাধি সৃষ্টিকারি নির্দিষ্ট এন্টিজেনকে ধ্বংস করে। মানবদেহে প্রায় দশ কোটি প্রকারের B উৎপন্ন হতে পারে।
(গ) B -এর গঠন লিখ। ৩
(ঘ) রোগ প্রতিরোধে B-এর ভূমিকা লেখ। ৪

২৩। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।


(গ) উপরের চিত্রের শ্রেণিগুলোর বিস্তারিত আলোচনা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপটি কীভাবে মানবদেহের প্রতিরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে? বিশ্লেষণ কর। ৪

২৪। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।


(গ) উদ্দীপকে উল্লেখিত চিত্রটির গঠন বৈশিষ্ট্য ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লেখিত চিত্রটির কীভাবে মানবদেহের প্রতিরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে? বিশ্লেষণ কর। ৪

২৫। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।


(গ) উপরের চিত্রটি খাতায় অঙ্কন করে বিভিন্ন অংশ চিহ্নিত কর। ৩
(ঘ) উপরের অঙ্গটি আমাদের দেহে কীভাবে রোগ প্রতিরোধ করে আলোচনা কর। ৪