উচ্চ মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান প্রথম পত্র সৃজনশীল প্রশ্ন (HSC Biology 1st Paper CQ)


প্রথম অধ্যায়: কোষ ও এর গঠন


(ক) জ্ঞানমূলক প্রশ্ন :


১। কোষ কী?
২। সর্বপ্রথম কে কোষ আবিষ্কার করেন?
৩। কোষীয় অঙ্গাণু কী?
৪। প্রোটোপ্লাজম কী?
৫। জীবদেহের গঠন ও কাজের একক কী ?
৬। কোষের কোন অংশকে সাইটোপ্লাজম বলে ?
৭। কোষের প্রাণকেন্দ্র বলা হয় কাকে ?
৮। একক র্পদা বা ইউনিট মেমব্রেন কী?
৯। রাইবোজোম কে আবিস্কার করেন?
১০। ক্রোমোপ্লাস্ট কী?
১১। নিউক্লিয়াস কী?
১২। নিউক্লিওটাইড কী?
১৩। ট্রান্সক্রিপসন কী?
১৪। জিন কি?
১৫। কোষরস বলতে কী বুঝ ?
১৬। জেনেটিক RNA কী?
১৭। স্যাট ক্রোমোসোম কাকে বলে?
১৮। প্রকৃত কোষ কাকে বলে?
১৯। জিনোম কী?
২০। স্ব-গ্রাস বা অটোগ্রাস কী?
২১। কোডন কী?
২২। ট্রান্সক্রিপশন কী?
২৩। টনোপ্লাস্ট কী?
২৪। প্লাজমামেমব্রেন কী?
২৫। কাইনেটোকোর কী?
২৬। মেরিস্টেমেটিক কোষ কাকে বলে?
২৭। ক্রোমাটিড কী?
২৮। সেন্ট্রোমিয়ার কি?
২৯। বিপাকীয় নিউক্লিয়াস কাকে বলে?
৩০। Flip-flop movement কী?
৩১। RNA -কী?
৩২। Genetic Code কী?
৩৩। ইন্টারফেজ কী?
৩৪। জেনেটিক কোড কাকে বলে?

(খ) অনুধাবনমূলক প্রশ্ন :


১। পেপটাইড বন্ধন বলতে কী বুঝ?
২। মাইটোকন্ড্রিয়াকে কোষের ‘পাওয়ার হাউস’/ শক্তিঘর বলা হয় কেন ?
৩। রাইবোসোমকে প্রোটিনের ফ্যাক্টরি বলা হয় কেন?
৪। আদি কোষ বলতে কী বুঝ?
৫। সেন্ট্রোমিয়ারের অবস্থানের উপর ভিত্তি করে ক্রোমোজোমের প্রকারভেদের চিত্র অংকন কর।
৬। লাইসোজোমকে আত্মঘাতী থলিকা বলা হয় কেন?
৭। প্লাাস্টিডের গুরুত্ব লিখ?
৮। নিউক্লিয়াস কোষের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কেন ?
৯। উদ্ভিদকোষের ক্ষেত্রে কোষপ্রাচীর গুরুত্বপূর্ণ কেন ?
১০। ব্যাকটেরিয়াকে আদি কোষ বলা হয় কেন?
১১। উদ্ভিদকোষ ও প্রাণীকোষের তিনটি করে পার্থক্য লিখ।
১২। ট্রান্সক্রিপশন বলতে কী বোঝায়?
১৩। ফুলের রং রঙ্গিন হয় কেন?
১৪। সেন্ট্রোমিয়ারের অবস্থানের উপর ভিত্তি করে ক্রোমোজোমের প্রকারভেদের চিত্র অংকন কর।
১৫। অর্ধরক্ষণশীল অনুলিপন বলতে কী বুঝ?
১৬। ক্লোরোপ্লাস্টের কাজগুলো লিখ।
১৭। মাইটোকন্ড্রিয়াকে কোষের শক্তিঘর বলা হয় কেন?
১৮। নিউক্লিয়াসকে কোষের প্রাণকেন্দ্র বলা হয় কেন?
১৯। জেনেটিক কোড বলতে কী বুঝ?
২০। কোন ক্ষুদ্রাঙ্গকে প্রোটিন তৈরির কারখানা বলে এবং কেন?
২১। নিউক্লিয়াসকে কোষের প্রাণকেন্দ্র বলা হয় কেন?
২২। সেন্ট্রাল ডগমা (Central Dogma) বলতে কী বুঝ?
২৩। Chromosome বলতে কী বুঝায়?
২৪। জরায়ুজ অংকুরোদগম বলতে কী বুঝায়?

(গ) ও (ঘ) প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্ন :



১। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) উপরের অঙ্গাণুটি অংকন করে এর গঠন ও কাজ বর্ননা কর।
(ঘ) উপরের চিত্রটিকে কোষের পাওয়ার হাউস কেন বলা হয় আলোচনা কর।

২। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) উপরের চিত্রটির অতিআণুবীক্ষণিক চিহ্নিত চিত্র অংকন করে বর্ণনা দাও।
(ঘ) কিভাবে এটি বিভিন্ন চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য পিতামাতা থেকে সন্তানের মধ্যে সঞ্চারিত করে ব্যাখ্যা কর।

৩। নিচের চিত্র দুটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :



(গ) চিত্রে A অংশের ভৌত গঠন বর্ণনা কর।
(ঘ) চিত্রে A ও B অংশের মধ্যে পার্থক্য আছে কী? তোমার মতামত দাও।

৪। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) " a" চিহ্নিত অংশটি চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য প্রকাশের জন্য দায়ী কীভাবে ?
(ঘ) মানুষের লিঙ্গ নির্ধারণে ওপরে প্রদত্ত অঙ্গটির ভূমিকা বিশ্লেষণ কর।

৫। নিচের চিত্রটি দেখ এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) চিত্রের অনুটির গঠন বর্ণনা কর।
(ঘ) চিত্রের অনুটির জীবের বৈশিষ্ট্য নিয়ন্ত্রণ করতে DNA কে সাহায্য করে মূল্যায়ন কর।

৬। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ)চিত্র A এর সাথে চিত্র B এর দেহ গঠনকারী এককের তুলনা কর।
(ঘ) B দেহে C তন্তুর গুরুত্ব বিশ্লেষণ কর।

৭। চিত্রটি পর্যবেক্ষণ কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:



(গ) চিত্র A এর প্রক্রিয়াটি বর্ণনা কর।
(ঘ) উদ্দীপকের প্রক্রিয়াটি না ঘটলে জীবজগতের কীরূপ অবস্থা হবে বলে তুমি মনে কর।- বিশ্লেষণ কর।

৮। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ)মানুষের একটি দেহকোষের সাথে উদ্দীপকের কোষটির প্রধান পার্থক্যগুলি দেখাও।
(ঘ)জীবকুলের অস্তিত্বরক্ষায় " a " চিহ্নিত অঙ্গাণুটির ভূমিকা বিশ্লেষণ কর।

৯। চিত্রটি পর্যবেক্ষণ কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:



(গ) চিত্র A ও B এর মধ্যে কার্যগত সম্পর্কের নির্ভরশীলতা উল্লেখ কর।
(ঘ) A এর কার্যকলাপ ব্যাতিরেকে চলমান জীব জগৎ কল্পনাহীন - মূল্যায়ন কর।

১০। নিচের চিত্রটি দেখ এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) চিত্রের অংগানুটির গঠন ও কাজ বর্ণনা কর।
(ঘ) জীবদেহে উপরের অংগানুটি না থাকলে কী হতো-বিস্তারিত লিখ।

১১। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

ফিন্নি খাওয়ার সময় রুবেলের ফিনির বাটিতে মা একটি মিষ্টি দিল। ফিনির বাটির মাঝখানে ফিনিতে ভাসমান এই মিষ্টি রুবেলের কাছে তার প্রাণিবিজ্ঞান বইয়ে পড়া একটি কোষীয় উপাদানের কথা মনে করিয়ে দিল। তার আরও মনে হল এই উপাদানটি আজকের জীব প্রাচুর্যতার জন্য দায়ী।
গ. রুবেলের পর্যবেক্ষণকৃত কোষীয় উপাদানটির রাসায়নিক গঠন বর্ণনা কর।
ঘ. রুবেলের কেন মনে হল উল্লিখিত উপাদানটি জীব প্রাচুর্যতার জন্য দায়ী?- বিশ্লেষণ কর।

১২। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

সানির চোখ জোড়া আটকে আছে ‘ডিসকভারি বাংলা চ্যানেলে’ চলমান একটি অনুষ্ঠানে। সে দেখল প্যাচাঁনো সিড়ির মত একটি বস্তু, যা এক সূত্রাকার বা দ্বিসূত্রকার গঠন বিশিষ্ট্য বৈচিত্র্য যা আমাদের জগৎকে করেছে বৈচিত্র্যময়।
গ. সানির দেখা উপাদান দুটির মধ্যে গঠনগত ও কার্যগত পার্থক্য নির্ণয় কর।
ঘ. উদ্দীপকে উল্লিখিত বস্তু ২টির সাথে বৈচিত্র্যময় জীবজগতের সম্পর্ক বিশ্লেষণ কর।

১৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

শিক্ষক জীববিজ্ঞান ক্লাশে কোষের বিভিন্ন অঙ্গাণু নিয়ে আলোচনা করার সময় বললেন ' A ' হল সাইটোপ্লাজমের এমন একটি অঙ্গাণু যা দুটি সাব ইউনিট নিয়ে গঠিত এবং প্রোটিন তৈরি করে। আর ' B ' হল সাইটোপ্লাজমের অন্য একটি বিশেষ অঙ্গাণু যা ঝিল্লী দ্বারা আবদ্ধ এবং জীবাণু ধংস করে।
(গ) উদ্দীপকের ' A ' ও ' B ' অঙ্গাণু দুটির মধ্যে পার্থক্য লিখ।
(ঘ) আমাদের জীবন ধারণের ক্ষেত্রে ' A ' ও ' B ' অঙ্গাণু দুটির ভূমিকা আলোচনা কর।

১৪। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

রুনা সকালের নাস্তায় সিদ্ধ ডিম ভাঙতে গিয়ে খোসার নিচে একটি পাতলা পর্দা দেখতে পায়। প্রমে একটু অচেনা মনে হলেও একটু পরে মনে পড়ল এটির বিষয়ে তার পাঠ্য বইতে সিঙ্গার ও নিকলসন ব্যাখ্যা দিয়েছেন।
গ. উল্লেখিত অঙ্গটির জীব জগতে কতটুকু গুরুত¦ রয়েছে-ব্যাখ্যা কর। ৩
ঘ. উদ্দীপকের অঙ্গটি কিভাবে গঠিত হয় উলেখিত বিজ্ঞানীদের মতানুযায়ী চিত্রসহ ব্যাখ্যা কর। ৪

১৫। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

উদ্ভিদ ও প্রাণী উভয় কোষে বিদ্যমান সজীব ঝিল্লিটির গঠন সম্পর্কে বিভিন্ন বিজ্ঞানী বিভিন্ন মতবাদ ও মডেল প্রদান করেছেন । এর মধ্যে একটি মডেল এখন পর্যন্ত সর্বজনগ্রাহ্য । ঝিল্লিটি কোষের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ।
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত ঝিল্লিটির গঠন সম্পর্কিত সর্বজনগ্রাহ্য মডেলটি ব্যাখ্যা কর। ৩
ঘ. উদ্দীপকের ঝিল্লিটি কোষের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ -উক্তিটির যথার্থতা নিরূপণ কর। ৪

১৬। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

শিক্ষক ক্লাসে দ্বিস্তরবিশিষ্ট দুটো কোষীয় অঙ্গাণু উল্লেখ করে বললেন, যাদের একটি উদ্ভিদকোষের অনন্য বৈশিষ্ট্য হলেও অপরটি উন্নত জীব কোষের শক্তির উৎপাদনের ঘরের সাথে তুলনীয়।
(গ) উদ্দীপকের দ্বিতীয় অঙ্গাণুর গঠন বর্ণনা কর।
(ঘ) উদ্দীপকের প্রথম অঙ্গাণুটি উদ্ভিদের অনন্য বৈশিষ্ট্য হলেও সকল জীবের জন্য এর গুরুত্ব রয়েছে- উক্তিটি মূল্যায়ন কর।

১৭। নিচের চিত্র দুটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :



(গ) চিত্র-২ এ প্রধান যে প্রক্রিয়ায় ATP ও NADPH2 উৎপন্ন হয় তার বর্ণনা দাও।
(ঘ) উদ্দীপকের চিত্র দুটিতে যে জৈবনিক প্রক্রিয়া দুটি সংগঠিত হয় তার গুরুত্ব লিখ।

১৮। নিচের চিত্রগুলো লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) চিত্র A ও B অংশ যদি কোনো কোষ হতে সরিয়ে ফেলা হয় তাহলে কী কী সমস্যা হতে পারে ব্যাখ্যা কর।
(ঘ) চিত্রের অঙ্গাণুগুলো কীভাবে একে অপরের সাথে সম্পর্কযুক্ত হয়ে কোষের কার্যকলাপে ভূমিকা রাখে বিশ্লেষণ কর।

১৯। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :



(গ) লিঙ্গ নির্ধারণের ক্ষেত্রে চিত্র B এর একটি অংশই মুখ্য- ব্যাখ্যা কর। ৩
(ঘ) সুবিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে চিত্র অ এর ব্যবহার একটি কার্যকর পদক্ষেপযুক্তি প্রদর্শন কর। ৪

২০। নিচের চিত্রটি দেখ এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।

কোষ হচ্ছে জীবদেহের গঠন ও কাজের একক। উদ্ভিদ ও প্রাণী কোষের মধ্যে যথেষ্ট মিল থাকলেও অণুবীক্ষণযন্ত্রে এদের পর্যবেক্ষণ করলে বেশ কিছু পার্থক্য দেখা যায়।

(গ) X ও Y উভয় কোষের মধ্যেই পাওয়া যায় এরূপ দুটি অঙ্গাণুর চিহ্নিত চিত্র দাও।
(ঘ) উপরের চিত্র দুটির প্রধান প্রধান পার্থক্য ছক আকারে লেখ।

২১। নিচের চিত্রটি দেখ এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) উদ্ভিদ দেহে চিত্রের অঙ্গানুটি না থাকলে কী হতো? ৩
(ঘ) এ ধরনের অঙ্গানু উদ্ভিদ দেহের অনন্য বৈশিষ্ট্যস্বরূপ কথাটির যথার্থতা লিখ। ৪

২২। নিচের চিত্রগুলি দেখ এবং তৎসংশ্লিষ্ট প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।



(গ) চিত্র নং ২ এর অঙ্গাণুটির গঠন ও কাজ লিখ।
(ঘ) চিত্র নং ১ এর অঙ্গাণুটি যদি প্রাণিকোষে না থাকত তবে কী ঘটত? তা বিশ্লেষণ কর।

২৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

জীববিজ্ঞান ক্লাসে শিক্ষক বললেন, উদ্ভিদ কোষে দুটি আবরণ আছে। একটি আবরণ মৃত এবং অন্য আবরণটি সজীব। শিক্ষক জানালেন যে, উদ্ভিদ কোষের ক্ষেত্রে বাইরের আবরণটি একটি অন্যতম প্রধান শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্য। এই প্রাচীরের নিচে রয়েছে এক প্রকার ঝিল্লিবৎ আবরণী যার গঠন বৈশিষ্ট্য নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। অনেক বিজ্ঞানী নানাভাবে এর গঠন বর্ণনা করলেও সিঙ্গার ও নিকলসন প্রদত্ত মডেলটিই সর্বাপেক্ষা গ্রহণযোগ্য যা আইসবার্গ মডেল হিসেবেও পরিচিত।
(গ) উদ্দীপকে আলোচিত আবরণ দুটির গঠন একই রকম না হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করো।
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লেখিত সর্বাপেক্ষা গ্রহণযোগ্য মডেলটি একটি যথার্থ মডেল -বিশ্লেষণ করো।

২৪। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

শ্রেণি শিক্ষক ক্লাসে পাঠদান করতে গিয়ে বোর্ডে A এবং B দুটি ক্ষুদ্রাঙ্গের চিত্র অংকন করে বললেন, A ক্ষুদ্রাঙ্গটিতে শ্বসনের বিভিন্ন পর্যায় সংঘটিত হয় কিন্তু B ক্ষুদ্রাঙ্গটি একটি বিশেষ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে RNA সংযুক্ত।
(গ) উদ্দীপকে A ক্ষুদ্রাঙ্গটির গঠন ব্যাখ্যা করো।
(ঘ) উদ্দীপকে B ক্ষুদ্রাঙ্গটির সাথে RNA সংযুক্তির কারণ বিশ্লেষণ করো।

২৫। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

ডিমের কুসুমের মতো উদ্ভিদ কোষে একটি কোষীয় অঙ্গাণু বিদ্যমান।
(গ) উদ্দীপকে উল্লেখিত উদ্ভিদ এর কোষীয় অঙ্গাণুর সচিত্র বর্ণনা করো।
(ঘ) উদ্দীপকে উল্লেখিত কোষীয় অঙ্গাণুতে অবস্থিত সূত্রাকার অঙ্গ বংশগতিতে কিভাবে ভূমিকা রাখে ব্যাখ্যা করো।

২৬। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

লিমা মামার সাথে বোটানিক্যাল গার্ডেন গিয়ে অসংখ্য রং বেরঙের ফুল দেখতে পায়। মামা লিমাকে বলল উদ্ভিদ কোষের একটি বিশেষ অঙ্গাণুর জন্যই এরকম হয়েছে। পাতার সবুজ বর্ণের জন্যও অঙ্গাণুটি দায়ি।
(গ) পাতার সবুজ বর্ণের জন্য দায়ী অঙ্গাণুটির গঠন ব্যাখ্যা করো।
(ঘ) উদ্দীপকের অঙ্গাণুটিই প্রাণিকে উদ্ভিদের উপর নির্ভরশীল করেছে -উক্তিটির সত্যতা যাচাই করো।

২৭। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

জীবকোষের একটি অঙ্গাণু যাকে কোষের শক্তিঘর (Power House) বলা হয়। আবার শর্করা জাতীয় খাদ্য তৈরি করতে পারে এমন একটি ক্ষুদ্রাঙ্গ যা প্রাণিকোষে নেই কিন্তু সাধারণত সবুজ উদ্ভিদ কোষে পাওয়া যায়।
(গ) উদ্দীপকের যে ক্ষুদ্রাঙ্গটি শুধু উদ্ভিদ কোষে পাওয় যায় তার গঠন লিখ।
(ঘ) যে ক্ষুদ্রাঙ্গটি উভয় কোষে পাওয়া যায় তার নাম লিখ এবং কেন তাকে শক্তি ঘর বলা হয়? বিশ্লেষণ করো।

২৮। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

কোষে বিদ্যমান এক ধরনের সূত্রাকার উপাদান যা জীবের সকল বংশগতীয় ও চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যসমূহ ধারণ ও নিয়ন্ত্রণ করে।
(গ) উদ্দীপকে বর্ণিত সূত্রাকার উপাদানটির গঠন বর্ণনা করো।
(ঘ) উদ্দীপকে বর্ণিত বস্তুটি “জীবের যাবতীয় বৈশিষ্ট্যসমূহ ধারণ এবং বংশপরম্পরায় সঞ্চালিত করে” -উক্তিটির যথার্থতা বিশ্লেষণ করো।

২৯। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

কোষের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত সূত্রাকার উপাদান যার মাধ্যমে বাবা-মা এর চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য সন্তান-সন্ততিতে স্থানান্তরিত হয়।
(গ) উদ্দীপকের উপাদানটির সচিত্র গঠন বর্ণনা করো।
(ঘ) বংশগতিতে উপাদানটির কোন গুরুত্ব আছে কিনা বিশ্লেষণ করো।

৩০। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

উদ্ভিদ ও প্রাণি উভয় কোষের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গাণু রয়েছে যা কোষের যাবতীয় কাজের জন্য শক্তি উৎপাদন করে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লেখিত কোষ অঙ্গাণুটির চিহ্নিত চিত্রসহ গঠন বর্ণনা করো।
(ঘ) জীবের জীবনে উদ্দীপকে নির্দেশিত অঙ্গাণুটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে -বিশ্লেষণ করো।

৩১। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

উদ্ভিদ বিজ্ঞানের শিক্ষক ক্লাশে কোষের বিভিন্ন অঙ্গাণু সম্পর্কে আলোচনা করেন। এর মধ্যে দুটি অঙ্গাণু নিয়ে তিনি বিস্তারিত আলোচনা করেন ও বোর্ডে চিত্র অংকণ করেন। যার একটি উদ্ভিদের দেহে বর্ণ সৃষ্টি করে এবং অপরটি শ্বসন প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
(গ) শিক্ষক প্রথমে যে অঙ্গাণুটি নিয়ে আলোচনা করেন তার গঠন লিখ।
(ঘ) শিক্ষকের আলোচিত দুটি অঙ্গাণুর গঠন ও কাজের মাঝে তুলনা করো।

৩২। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

জীবকোষের দুই ধরনের নিউক্লিক এসিড থাকে যা N2 ঘটিত ক্ষারক, পেন্টোজ শ্যুগার এবং ফসফোরিক এসিডের সমন্বয়ে গঠিত। এক ধরনের নিউক্লিক এসিড বংশগতির ধারক ও বাহক হিসেবে কাজ করে এবং অপরটির প্রধান কাজ হচ্ছে প্রোটিন সংশ্লেষণ করা।
(গ) প্রোটিন সংশ্লেষে সাহায্যকারী নিউক্লিক এসিডটির প্রকারভেদ লিখ।
(ঘ) বংশগতির ধারক ও বাহক হিসেবে পরিচিত নিউক্লিক এসিডটির নাম লিখ এবং এর গঠনের উপর সর্বজন স্বীকৃত মডেলটি ব্যাখ্যা করো।

৩৩। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

জীববিজ্ঞান ক্লাসে শিক্ষক একটি অঙ্গাণুর কথা উল্লেখ করলেন। যাতে দ্বিস্তরী এবং স্তূপাকৃতি রৌপ্য মুদ্রার মতো স্তূপ রয়েছে। যার উপস্থিতিতে উদ্ভিদ নিজের খাদ্য নিজে তৈরি করতে পারে।
(গ) উদ্দীপকে উল্লিখিত অঙ্গাণুটির চিহ্নিত চিত্র দাও।
(ঘ) উক্ত অঙ্গাণুটি পরিবেশের ভারসাম্য ও জীবকূলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে মন্তব্য করো।

৩৪। নিচের উদ্দীপকটি পড় এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাওঃ-

জীবকোষে দ্বিসূত্রক, প্যাঁচানো সিড়ির মতো এক প্রকার রাসায়নিক উপাদান থাকে যা কোষের সব ধরনের বিপাকীয় প্রক্রিয়া এবং বৈশিষ্ট্যসমূহকে নিয়ন্ত্রণ করে।
(গ) উদ্দীপকের উপাদানটির গাঠনিক একক এর উপাদানগুলোর রাসায়নিক সংকেত লিখ।
(ঘ) উদ্দীপকের শেষাংশের যথার্থতা বিশ্লেষণ করো।

৩৫। উদ্দীপকটি পড় এবং নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।

ডিনা ও কণা কোষের এমন একটি উপাদান নিয়ে আলোচনা করছিল যা উদ্ভিদ কোষের অনন্য বৈশিষ্ট্য। আলোচনার এক পর্যায়ে ডিনা বলল, ‘এটি তিনটি স্তর নিয়ে গঠিত যাতে এক বিশেষ ধরনের পলিস্যাকারাইড উপস্থিত থাকায় তা কোষকে বাইরের আঘাত থেকে সুরক্ষা করতে পারে।
(গ) উদ্ভিদের ক্ষেত্রে উক্ত অঙ্গাণুটি গুরুত্বপূর্ণ কেন?
(ঘ) উল্লেখিত পলিস্যাকারাইডটি উক্ত অঙ্গাণুটির গঠনে কিরূপ ভূমিকা রাখে?—বিশ্লেষণ কর।

৩৬। উদ্দীপকটি পড় এবং নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও।

ড. নিজাম তাঁর ছাত্র-ছাত্রীদের একটি সূত্রাকৃতির কোষীয় অঙ্গাণু দেখিয়ে বললেন, “প্রতিটি উন্নত জীবে এটি উপস্থিত এবং এই অঙ্গাণুটির মাধ্যমেই বংশগতির বৈশিষ্ট্যসমূহ পিতামাতা থেকে তার সন্তান-সন্ততিতে বাহিত হয়।”
(গ) উক্ত অঙ্গাণুটির (শ্রেণিবিভাগ) প্রকারভেদ বর্ণনা কর।
(ঘ) উক্ত অঙ্গাণুটিকে কোষ বিভাজনের নিয়ামক বলা হয়—উক্তিটি ব্যাখ্যা কর।

৩৭। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :



(গ) উদ্দীপকের A ও B দ্বারা তৈরি বৃহদাণু দুটির পার্থক্য কর ।
(ঘ) জীবের বৈশিষ্ট্য প্রকাশে উক্ত বৃহদাণু দুটি পরস্পরের নির্ভরশীল -বিশ্লেষণ কর ।



৩৮। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :



(গ) উদ্দীপকের P -চিহ্নিত অংশে সংঘটিত প্রক্রিয়াটির সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দাও।
(ঘ) উদ্দীপকের প্রক্রিয়াটি জীবজগতে যে গুরুত্ব বহন করে চলছে তা বিস্তারিত আলোচনা কর ।



৩৯। নিচের উদ্দীপকটি লক্ষ্য কর এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :



(গ) উদ্দীপকের A থেকে B তৈরি প্রক্রিয়াটি চিত্রসহ বর্ণনা করো।
(ঘ) জীবের ক্ষেত্রে উদ্দীপকে দেখানো জৈব অণুগুলোর গুরুত্ব আলোচনা করো।