উচ্চ মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্র (HSC Biology 2nd Paper)


দশম অধ্যায় : মানবদেহের প্রতিরক্ষা (ইমিউনিটি)
(Chapter 10. Defense System of Human Body (Immunity):


প্রধান শব্দভিত্তিক সারসংক্ষেপ


♦ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা: জীবাণুর আক্রমণ থেকে আমাদের দেহকে রক্ষা করার ব্যবস্থাকে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বলে। আমাদের দেহে তিন স্তরের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা রয়েছে।

♦ ম্যাক্রোফেজ: ম্যাক্রোফেজ নামে বিশেষ এক ধরনের কোষ থাকে যারা রোগ-জীবাণুকে খেয়ে ফেলে।

♦ অ্যান্টিজেন: যে রাসায়নিক পদার্থ এন্টিবডি তৈরি করতে সাহায্য করে তাকে অ্যান্টিজেন বলে।

♦ অ্যান্টিবডি: অ্যান্টিবডি হলো এক প্রকার প্রোটিন জাতীয় পদার্থ। এ অ্যান্টিবডি আমাদের দেহের শ্বেত রক্তকণিকা উৎপন্ন করে থাকে।

♦ টিকা, ভ্যাকসিন: টিকা, ভ্যাকসিন মানুষের দেহে বিশেষ বিশেষ রোগের হাত থেকে বাঁচার জন্য প্রতিরোধ ব্যবস্থা অর্জন করতে সাহায্য করে।

♦ স্মৃতি কোষ: আমাদের দেহে কিছু স্মৃতি কোষ রয়েছে যা দেহের ক্ষতিকারক জীবাণুদের প্রকৃতি মনে রাখে।

♦ ইন্টারফেরন: ভাইরাসে আক্রান্ত কোষ থেকে ইন্টারফেরন নামক এক ধরনের বিশেষ রাসায়নিক পদার্থ নি:সৃত হয়ে কোষকে রক্ষা করে।

♦ ভ্যাক্সিনেশন: বহিরাগত জীবাণু যেমন ভাইরাস, ব্যাক্টেরিয়া ইত্যাদির সংক্রমন থেকে দেহকে রক্ষা করার উপায়কে ভ্যাক্সিনেশন বলে।

♦ সহজাত প্রতিরক্ষা: আমাদের দেহে জন্মগতভাবেই জীবাণুর বিরুদ্ধে একটি প্রতিরোধ ব্যবস্থা থাকে, একে সহজাত প্রতিরক্ষা স্তর বলে।

সূত্র: জীবিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্র, একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি

ড. মোহাম্মদ আবুল হাসান

গাজী সালাহউদ্দিন সিদ্দিকী